Home Uncategorized শিলচর বিমানবন্দরে “পাকিস্তান জিন্দাবাদ” স্লোগান! “ভিডিওটি বিকৃত করা হয়েছে” দাবি এআইইউডিএফ-এর

শিলচর বিমানবন্দরে “পাকিস্তান জিন্দাবাদ” স্লোগান! “ভিডিওটি বিকৃত করা হয়েছে” দাবি এআইইউডিএফ-এর

শুক্রবার সকালে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে কিছু লোক আসামের শিলচর বিমানবন্দরে “পাকিস্তান জিন্দাবাদ” স্লোগান তুলেছে বলে অভিযোগ উঠেছে, অল ইন্ডিয়া ইউনাইটেড ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (এআইইউডিএফ) প্রধান ও সংসদ সদস্য বদারউদ্দিন আজমল নির্বাচনী জনসভায় যোগ দিতে গতকাল শিলচরে আসেন এবং তাকে শিলচর বিমানবন্দরে স্বাগত জানানোর সময় কিছু সমর্থকরা এই স্লোগান তুলে বলে অভিযোগ উঠেছে।

আসামে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক দলগুলির সমস্ত প্রচারের মধ্যে, এই উদ্ভট ঘটনাটি রাজ্যের মানুষের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি করেছে।আসামের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হিমন্ত বিশ্ব শর্মা এবং বিজেপি-র অন্যান্য রাজনৈতিক নেতারা এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন।

আজ স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ হিমন্ত বিশ্ব শর্মা একটি টুইটে বলেন “এই মৌলবাদী দেশবিরোধী লোকদের নির্লজ্জতার দিকে তাকান যারা পাকিস্তান জিন্দাবাদে চিৎকার করে তাদের এমপি বদরুদ্দিনআজমালকে স্বাগত জানাচ্ছে।এই ঘটনাটি কংগ্রেসকে পুরোপুরিভাবে উন্মোচিত করেছে যা জোট জাল করে এই জাতীয় শক্তিগুলিকে উত্সাহিত করছে।আমরা তাদের বিরুদ্ধে লড়াই করব। জয় হিন্দ। “

এই প্রসঙ্গে এআইইউডিএফ সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বলেন “গতকাল অনেক রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব ছিল শিলচর বিমানবন্দরে এবং সমর্থকরা জিন্দাবাদ স্লোগান তুলছিল। তার মধ্যে অনেকে বদরউদ্দিন আজমাল জিন্দাবাদ স্লোগান তুলেছিল।কিন্তু যখন তারা আজিজ খান জিন্দাবাদ উত্থাপন করে, তখন হেমন্ত বিশ্ব শর্মার চ্যানেল নিউজ লাইভ ষড়যন্ত্র করে সংবাদ প্রকাশ করে যে পাকিস্তান জিন্দাবাদ শ্লোগানে উত্থাপিত হয়েছে।”

তিনি আরও বলেন যে “ভিডিওটি বিকৃত করা হয়েছে। সেখানে সিআইএসফ মোতায়েন ছিল, পুলিশ মোতায়েন করা ছিল, আপনি কি ভাবেন না যে তারা এই জাতীয় স্লোগানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়নি। আমরা এই বিষয়ে সুষ্ঠু তদন্ত চাই এবং আমরা সম্পূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছি।”

এপ্রসঙ্গে কাছাড় পুলিশ সুপার বিএল মিনা জানান”আমরা ভিডিওটির সত্যতা এবং ভিডিওর কন্টেন্ট গুলি যাচাই করছি এবং আমারা এব্যাপারে একটি উচ্চ স্তরীয় তদন্তের আশ্বাস দিচ্ছি।”

তাছাড়া ইতিমধ্যে শিলচরের সাংসদ রাজদীপ রায় শিলচর সদর থানাতে বদরউদ্দিন আজমল এবং তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে একটি এজাহার দায়ের করেছেন বলে জানা গিয়েছে।

উল্লেখ্য যে আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে এখন অসম জুড়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রচারসভা চলছে। জানা গিয়েছে নির্বাচনের প্রচারের জন্যই এদিন চার দিনের সফরে শিলচর আসেন বদরউদ্দিন আজমল। তারপর গতকাল শিলচরে দলীয় কর্মীদের সাথে বৈঠকে আজমল বলেছেন যে এআইইউডিএফ বরাক উপত্যকায় ১২ টি আসন জিতবে।তারপর আজ সকালেই এই ভিডিওটি প্রকাশ হয়।অবশ্যই এর সত্যতা নিয়ে বহু প্রশ্ন রয়ে গিয়েছে।