Home Uncategorized অপসারিত মুঙ্গার পুলিশ সুপার এবং জেলা ম্যাজিস্ট্রেট! মুঙ্গেরে বিক্ষোভ অব্যাহত।

অপসারিত মুঙ্গার পুলিশ সুপার এবং জেলা ম্যাজিস্ট্রেট! মুঙ্গেরে বিক্ষোভ অব্যাহত।

Representative image

সোমবার বিহারের মুঙ্গেরে দুর্গা মূর্তি বিসর্জনের সময়ে একটি অনুষ্ঠানে পুলিশের গুলিতে একজনের মৃত্যুর ঘটনায় বুধবার মুঙ্গার পুলিশ সুপার (এসপি) এবং জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (ডিএম) কে তাত্ক্ষণিকভাবে অপসারণের নির্দেশ দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।তাছাড়া নির্বাচন কমিশন মগধের বিভাগীয় কমিশনার ‘আশংবা চৌবা আও’ দ্বারা পুরো ঘটনার তদন্তেরও আদেশ দিয়েছে, যা পরবর্তী সাত দিনের মধ্যে শেষ করতে হবে।

বুধবার এক প্রেস রিলিজে বিহারের চিফ ইলেক্টোরাল অফিসার জানান, “মুঙ্গেরের ঘটনায় সংশ্লিষ্ট এলাকার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারকে দ্রুত সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন।” নির্দেশ মতো এদিন সকালেই মুঙ্গেরের জেলাশাসক রাজেশ মীনা ও এসপি লিপি সিংকে সরিয়ে দেওয়া হয়। নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, মগধের ডিভিশনাল কমিশনার আশংবা চৌবের নেতৃত্বে গোটা ঘটনার তদন্ত হবে। সাতদিনের মধ্যে তদন্ত শেষ করে রিপোর্ট জমা করতে হবে। উল্লেখ্য, বিহারে বিধানসভা নির্বাচন চলছে। তাই আপাতত সে রজ্যের আইনশৃঙ্খলার দায়িত্বে রয়েছে নির্বাচন কমিশন।

সম্প্রতি দুর্গা প্রতিমা বিসর্জনের সময় পুলিশের ওপর পাথর ছোড়াছুড়ি, গুলি বর্ষণ হয় বিহারের মুঙ্গেরে। যার ফলে নিহত হন অনুরাগ কুমার নামে ১৮ বছর বয়সী এক ব্যক্তি এবং ২০ জন পুলিশকর্মী আহত হন। মঙ্গলবার ঘটনাটির প্রেক্ষিতে অভিযোগ দায়ের হয়।তারপর পুলিশের গুলির বিরুদ্ধে সহিংস বিক্ষোভ শুরু হয় বিহারের মুঙ্গেরে।পুলিশের গুলিতে আরও কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে বিক্ষোভকারীরা।দুর্গা প্রতিমা বহনকারী একটি দলের বিরুদ্ধে পুলিশের লাঠিচার্জ দেখানো একটি ভিডিও অনলাইনে প্রচারিত হয়েছে, যার ফলে একটি সম্প্রদায় বিশেষের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

এদিকে, পুলিশি বর্বরতার প্রতিবাদে মুঙ্গেরে বিক্ষোভ অব্যাহত।বুধবার বিক্ষোভ চলাকালীন মহকুমা শাসক ও এসপির অফিসে ভাঙচুর চালায় উত্তেজিত জনতা। বেশকিছু জায়গায় আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয়। সবমিলিয়ে এখনও উত্তপ্ত বিহারের মুঙ্গের। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় টহল দিচ্ছে পুলিশ।