হিন্দু জাগরণ মঞ্চ, শিলচর শাখার ব্যবস্থাপনায় শিলচর বাসী স্মরণ ও সংকল্পের দ্বারা শ্রদ্ধাঞ্জলি জানালো ভারতের বীর শহিদ দের।

    হিন্দু জাগরণ মঞ্চ, শিলচর শাখার ব্যবস্থাপনায় শিলচর বাসী স্মরণ ও সংকল্পের দ্বারা শ্রদ্ধাঞ্জলি জানালো ভারতের বীর শহিদ দের। ১৫ জুন রাতে ভারতের লাদাখ সীমান্তে ২০ জন ভারতীয় বীর সেনানী শহিদ হন। ২০ জুন শনিবার সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় রাঙ্গীরখাড়ী স্থিত নেতাজী স্টেচু সন্মুখে হিন্দু জাগরণ মঞ্চ শিলচর শাখার ব্যবস্থাপনায় শহিদ দের শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করা হয়। শাখার সকল সদস্য ২০ টি প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে শহিদ দের স্মরণ করেন। সেখানে সকলের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট অতিথি শ্রীযুক্ত শুভ্রাংশু শেখর ভট্টাচার্য। তিনি তার বক্তব্যে চীনা সেনার প্রতি প্রবল নিন্দা প্রকাশ করেন এবং ভারতীয় সেনার প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন। সেই সঙ্গে তিনি সকলকে চিনী দ্রব্য ব্যবহার বন্ধ করে স্বদেশী দ্রব্য গ্রহন করার আহ্বান জানান। তিনি সকলকে জানান যে এই ভারত ১৯৬২ ইং র ভারত নয়, ২০২০ ইং র ভারত।

    হিন্দু জাগরণ মঞ্চ ক্ষেত্র সংগঠন মন্ত্রী শ্রীযুক্ত বিজয় পাল মহাশয় শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পন করেন এবং তিনিও সকলকে চীনা দ্রব্য ব্যাবহার বর্জন করে স্বদেশী দ্রব্য ব্যাবহারের প্রতি আহ্বান জানান।

    সেখানে উপস্থিত হিন্দুবাদী বক্তা শ্রীযুক্ত বাসুদেব মহাশয় তার বক্তব্যে কমিউনিস্ট পার্টি ও কমিউনিস্ট বিচার ধারার কথা তুলে ধরেন। তিনি ও সকলকে চীনা দ্রব্য ব্যাবহার বর্জন করতে আহ্বান জানিয়ে তুলে ধরেন দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় জাপানের হিরোশিমা ও নাগাসাকির ঘটনা। তিনি জানান যে তখন জাপানবাসী পন করে যে তারা আর আমেরিকার কোনো জিনিস ব্যাবহার করবে না। তিনি এই উদাহরণ দিয়ে জানান যে আমাদের ও একই ভাবে চীনা দ্রব্য ব্যাবহার বর্জন করতে হবে তবেই এই বীর সেনানীদের শ্রদ্ধাঞ্জলি পূর্ণ হবে।

    সেই সঙ্গে শহিদদের শ্রদ্ধাঞ্জলি জানতে সেখানে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট আইনজীবী শ্রীযুক্ত রাজীব কুমার নাথ মহাশয়, জেলা সম্পাদক অরূপ কুমার নাথ মহাশয়, জেলা সম্পর্ক প্রমুখ রাজদীপ অধিকারী, অমিত রায়, নগর সভাপতি সৌভিক চৌধুরী, নগর সম্পাদক যশোবন্ত দেব নাথ, ভার্গব ভট্টাচার্য, বাপ্টু দাস, দেবদুলাল ভট্টাচার্য আরও অন্যান্য কর্য্যকর্তা প্রমুখ।

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.